লোগো ছাড়া কাইনমাস্টার ডাউনলোড / লোগো ছাড়া কাইনমাস্টার ডাউনলোড

কাইনমাস্টার সফটওয়্যার

স্বাগতম জুনায়েদ বিডি অনলাইন পোর্টালে। আপনারা জানেন জুনায়েদ বিডি অনলাইন পোর্টাল প্রতিনিয়তঃ আপনাদের সামনে নতুন কিছু তথ্য নিয়ে আলোচনা করি।সেই ধারাবাহিকতায় আজ আমরা মোবাইল কিনবা কম্পিউটারে ভিডিও এডিট করার সফটওয়্যার কাইনমাস্টার সফটওয়্যার সম্পর্কে আলোচনা করব আধুনিক ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার দিয়ে, অভিজ্ঞতা ছাড়া, আপনি একটা ভালো ভিডিও করতে পারেন.

আপনি যদি কম্পিউটারে কিংবা মোবাইল এর জন্য সেরা ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার খুঁজে থাকেন, তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন বর্তমানে কম্পিউটারে কিংবা মোবাইলের জন্য প্রচুর সংখ্যক ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার রয়েছে।

ফলে আপনি যদি আপনার কাজের জন্য পার্ফেক্ট ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার খুঁজতে যান, তাহলে আপনি এতো সব সফটওয়্যারের মাঝে হারিয়ে যেতে পারেন তাই আজকের পোস্টে আমি আপনাদের জন্য সেরা ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যারগুলোর একটি তালিকা তুলে ধরার চেস্ট করেছি।

আজকের আর্টিকেলে মোবাইলে ভিডিও এডিটিং এর জন্য প্লে স্টোর হতে বাছাইকৃত ২০২১ সালের সেরা ১২টি অ্যান্ড্রয়েড ভিডিও এডিটর অ্যাপ নিয়ে আলোচনা করা হলো।চলুন দেরী না করে আমরা প্রথমে অ্যাপসগুলোর নাম জেনে নেই।

1. Adobe Premiere Pro CCসুবিধা সমূহ। ছবি দিয়ে ভিডিও বানানো | Photo to Video 1.0.5√ প্রতিটি ছবিতে বাংলা লিখার সুবিধা, স্টাইলিশ ফন্টসহ।√ একটি ছবি দিয়েও পুরো ভিডিও বানানোর সুবিধা√ প্রতিটি ছবি ইডিট করা, এবং স্টিকার যুক্ত করা√ ছবির টাইম ম্যানুয়ালি বসানোর সুবিধা√ ভিডিও ট্রানজিশন এফেক্ট√ স্মুথ ভিডিও এফেক্ট√ Bug Fixedএবার দ্বিতীয় এপ্সটি সম্পর্কে আপনাদের জানিয়ে রাখতে চাই।

2. CyberLink PowerDirectorঅনেকেই আছেন ছবি থেকে ভিডিও বানাতে চান।ছবি এবং অডিও দিয়ে ভিডিও বানানোর সফটওয়্যার, যার সাহায্যে আপনি মূহুর্তেই অনেকগুলো ছবি যুক্ত করে তার সাথে মিউজিক যুক্ত করে বানিয়ে ফেলতে পারবেন সুন্দর ভিডিও।

ভিডিওটিকে আরো নান্দনিক করে তুলতে ব্যাবহার করতে পারবেন আকর্ষণীয় সব ফিল্টার, এবং ছবি চেইঞ্জ হওয়ার সাথে যুক্ত করতে পারবেন এনিমেশন বা ট্রানজিশন এফেক্ট।ভিডিওতে কালার আনার জন্য ব্যাবহার করতে পারবেন কালারফুল সব ফিল্টার। যা আপনার ভিডিওর সৌন্দর্যের মাত্রা আরো বাড়িয়ে দিবে।প্রতিটি ছবিতে যুক্ত করতে পারবেন যেকোনো লেখা।

স্টাইলিশ করে তোলার জন্য ব্যাবহার করতে পারবেন বিভিন্ন বাংলা ফন্ট।লেখার কালার এবং সাইজ ইচ্ছামত কাস্টমাইজ করে নেওয়া যাবে। আরো আকর্ষনীয় করে তোলার জন্য ইউজ করা যাবে টেক্সট শ্যাডো।
কি কি পাচ্ছেন এপটিতেঃ- গ্যালারী থেকে ছবি ইমপোর্ট- ছবিতে লেখা যুক্ত করা- বাংলা স্টাইলিশ সব ফন্ট- ছবি ইডিট এবং স্টিকার যুক্ত করা- অডিও ফাইল যুক্ত করা- বিভিন্ন ধরনের ফিল্টার- আকর্ষনীয় সব এনিমেশন ও ট্রানজিশন- ভিডিও প্রিভিউ- ভিডিও টাইম সেট- এপ এর ভিতরেই মিউজিক- ভিডিও স্ক্রিন রেশিও সেট- ভিডিও সেইভ।

3. Adobe Premiere Elementsস্পেশাল ফিচারঃ-অটো অডিও মিক্স ফিচারঅটোমেটিক ভিডিও ক্রিয়েশন ক্যাপাবিলিটিভিডিও অ্যাডোবি প্রিমিয়ার প্রো সিসিতে এক্সপোর্ট করার সুবিধাএকটা মজার ব্যাপার আপনাদের জানিয়ে রাখি।ছবি দিয়ে ভিডিও তৈরী?এমন কোন। এ্যাপ আছে কি যা দিয়ে ছবি দিয়ে ভিডিও তৈরী করতে পারব।

ও ছবি গুলি একেক সময় একেক স্টাইল হয়ে সো করবে,, নিজের ইচ্ছা মত গান বাছাই করে দিতে পারব। ছবিতে নাম ষ্ট্রিকার ইত্যদি লাগাতে পারব,,, থাকলে এ্যাপ টির ডাউনলোড লিংক টা দিবেন।

সেই সাথে বলে রাখি এ্যাপ টি দিয়ে যে ভিডিও তৈরী করব তাতে যেন মেগাবাইট বেশি না হয়,,, যেমন ৫ মিনিটের ভিডিও তৈরী করলাম সেখানে ৩০/৪০ মেগাবাইট সাইজের ভিডিও হল।কি অবাক হলেন? তাহলে ট্রাই করে দেখুন।প্রথমে আমরা অ্যাপস গুলি নিয়ে রিচার্জ করতে গিয়ে অবাক হয়েছিলাম। ভাবতে পারিনি এত সুন্দর করে অ্যাপস গুলো কিভাবে কাজ করে।

কিন্তু যখন নিজেরা কাজ করে দেখলাম অসাধারণ সার্ভিস দেয় চিন্তা করলাম দেরি না করে আপনাদের সাথে শেয়ার করি। বন্ধুরা এখন আমরা আপনাদের জানাব ইউটিউব ফেসবুক টিকটক লাইকি সহ নামিদামি সব অ্যাপসগুলো তে আপনারা কিভাবে ভিডিও এডিটিং করে আপলোড করবেন। বর্তমানে বাংলাদেশের প্রায় সব মানুষ টিকটক লাইক ফেসবুক এগুলো ব্যবহার করে।

এবং সবাই চাই যেন আমাদের একটা ভিডিও টিকটক কিংবা ফেসবুকে ভাইরাল হোক। আপনাদের থেকে পাওয়া প্রশ্নগুলো থেকে আমরা ভেবে দেখলাম অবশ্যই আমাদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও আপলোড করার জন্য অ্যাপস গুলি নিয়ে আর্টিকেল দেওয়া উচিত।

1. FilmoraGo:পার্সোনালি, এই অ্যাপটা আমার বেশ পছন্দের! ব্যবহার করা খুবই সহজ, খুব ভালো লাগে FilmoraGo এর মাধ্যমে ভিডিও এডিট করতে! কারণ এই অ্যাপ দিয়ে আমি একদম স্মুথলি কাজ করতে পারি।

অন্যান্য সব ভিডিও এডিটিং অ্যাপগুলোর মতন এটাতেও আছে ট্রিম, কাট, থিমযুক্ত করা, সাউন্ড ট্র‍্যাক এড করার সুবিধা।

পাশাপাশি নিজের সুবিধামত ফ্রেমিংও করা যাবে৷ তুমি চাইলেই ইন্সটাগ্রামের জন্য ১:১ আর ইউটিউবের জন্য ১৬:৯ ফ্রেমের ভিডিও বানাতে পারো।

এছাড়াও এটার মাধ্যমে আপনি রিভার্স ভিডিও বানাতে পারবেন, ট্রানজিশন এড করতে পারবে, টেক্সট যুক্ত করতে পারবে, এমনকি স্লো মোশন ভিডিও-ও বানাতে পারবে খুব সহজেই! আসলে ভাই সব কিছু রেটিং হয় না।

অন্যথায় এই অ্যাপসটি কি আমরা 10-10 দিতাম।এই অ্যাপের আরো কিছু সুযোগ-সুবিধা আছে, এরজন্য অবশ্য একটু টাকাপয়সা খরচ করা লাগবে৷ তবে চিন্তার কোনো কারণ নেই।

FilmoraGo এর বেশির ভাগ ফিচারই একদম ফ্রি! ভিডিও এডিট করা শেষে সরাসরি বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া সাইটগুলোতে আপলোড করার ব্যবস্থা আছে।

মজার ব্যাপার হলো, এই ভিডিও ওয়াটার মার্ক দেখা যাবে একদম শেষ, প্রিমিয়াম ভার্সনের ক্ষেত্রে কোনো ওয়াটার মার্ক নেই।

ওয়াটারমার্ক কি যারা বোঝে না তাদের জন্য বলে রাখতে চাই ওয়াটারমার্ক হচ্ছে কোন ছবি কে বেলার করে দেওয়া অর্থাৎ ডিএসএলআর মুড এ করে দেওয়া ছবিটাকে হালকা ঘোলাটে করে দেওয়া।

এবার যে অপস্টির কথা বলব সেটি হচ্ছে আপনাদের সবার কাছে বহুল প্রচলিত

কাইনমাস্টার প্রো ডাউনলোড | লোগো ছাড়া কাইনমাস্টার ডাউনলোড

Kine Master: এই অ্যাপটার ডিজাইন বেশ ভালো, সেই সাথে রয়েছে এর বেশ কিছু পাওয়ারফুল ফিচার! Drag-n-drop টেকনিকের মাধ্যমে বিভিন্ন মিডিয়াতে ফাইল ইম্পোর্ট করা যায়।

কাইনমাস্টার সফটওয়্যার দিয়ে প্রোফেশনাল স্টাইলে ভিডিও এডিট করা যাবে খুব সহজেই! বিভিন্ন রকমের ট্রানজিশন ইফেক্ট রয়েছে। অনেকগুলো ভিডিওর মাঝেও একাধিক ট্রানজিশন এড করতে পারবে।

সেই সাথে রয়েছে সাবটাইটেল যুক্ত করার সুবিধাও! আপনি লেয়ারের পর লেয়ার যুক্ত করে টেক্সট, গ্রাফিক্স, ইমেজ এমনকি নিজের হ্যান্ড রাইটিংও এড করতে পারবে৷ পাশাপাশি কালার এডজাস্ট করা, ব্রাইটনেস বাড়ানো কমানো, স্পিড, টিউনিং-সব ধরণের সুবিধা এখানে পাওয়া যাবে৷

kinemaster App For Android | কাইনমাস্টার প্রো ডাউনলোড

কাইনমাস্টার সফটওয়্যার দিয়ে প্রফেশনাল এডিশনটা পারচেজ করলে ওয়াটার মার্ক রিমুভ করার পাশাপাশি আরো বেশকিছু সুবিধা তুমি পেতে পারো।

এই তো জানা গেল স্মার্টফোনের ভিডিও এডিটিং অ্যাপ্লিকেশনগুলো সম্পর্কে৷ আপনি এখান থেকে কয়েকটা অ্যাপ ডাউনলোড করে একটু এদের কাজগুলো শিখে ফেলুন।

এরপর কোনো বন্ধুর জন্য একটা ভিডিও বানিয়ে তাকে তাক লাগিয়ে দান!আর এই অ্যাপস গুলোর কাজ শিখি আপনি ইনকাম করতে পারবেন।

বর্তমানে প্রচুর পরিমাণে মানুষ তারা নিজেদের প্রোডাক্ট এর বিজ্ঞাপন ভিডিও মাধ্যমে প্রচার করে থাকে তাই আপনি যদি নিজেকে একজন দক্ষ ভালো পরিশ্রমই ভিডিও এডিটর হিসেবে মানুষের সামনে প্রকাশ করতে পারেন তাহলে আপনার চাহিদা প্রচুর পরিমাণে থাকবে।

কাইনমাস্টার ওয়াটারমার্ক রিমুভ | লোগো ছাড়া কাইনমাস্টার ডাউনলোড

আপনি প্রচুর টাকাও ইনকাম করতে পারবেন আজ এ পর্যন্তই নেক্সট আর্টিকেল পর্যন্ত আপনারা সবাই ভালো থাকুন। দেরি না করে আমাদের উপরে উল্লেখিত অ্যাপস গুলি ডাউনলোড করে নিন এবং উপভোগ করুন সেরা সেরা ভিডিও এবং সোশ্যাল মার্কেটিং নিজের দক্ষতা প্রমাণ করুন ভালো থাকুন জোনাইদ বিডির সাথে থাকুন।

About Junaid BD

Junaidbd.com - technology blog: popular blogs - blog website - bangla blog site - bangla blog website - bd blog site - popular tech blogs.

View all posts by Junaid BD →